|

বন্যাতেও বাড়বে কুরবানি

Cow1440670699
Print Friendly

এফ টি বাংলা

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের হিসাব মতে, চলমান বন্যার কারণে দেশের ৩২ জেলার নয় হাজার ১৪০টি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার দেওয়া এই হিসাব মতে, এতে ৬১১ কি.মি. রাস্তা সম্পূর্ণ ও ছয় হাজার ৮৫৭ কি.মি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত ১০৪ কি.মি ও আংশিক হয়েছে ৬৫৮ কি.মি বাঁধ।

বন্যার এমন ক্ষয়ক্ষতির মধ্যে আসছে কুরবানির ঈদ। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের অনেকেই বাঁধে বা সড়কে অবস্থান করছেন। সাধারণত ঈদে যারা শহর থেকে গ্রামের বাড়িতে যান, তারাও গ্রামে যাবেন কিনা ভাবছেন। কারণ সড়ক পথ, রেল পথ ও নৌ-পথের কোনটিতেই ভরসা করা যাচ্ছে না। সেক্ষেত্রে এসব মানুষের কুরবানি দেওয়া নিয়েও রয়েছে অনিশ্চয়তা।

তবে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, এমন পরিস্থিতিতেও এবার কুরবানি ততটা কমবে না। নির্বাচন এখনো এক বছর দেরি হলেও। এখনই নির্বাচনের একরকম আবহ চলছে দেশজুড়ে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজ নিজ এলাকায় প্রচারণার অংশ হিসেবেও এবারই কুরবানি দেওয়ার উৎসবে মেতে উঠতে পারেন। তাই কুরবানি দেওয়ার সংখ্যা পূর্বের বছরের তুলনায় বাড়তে পারেও।

নির্বাচন পর্যবেক্ষকরা মনে করেন, আগামী নির্বাচনে যারা প্রার্থী হবেন কেবল তাদের একটি অংশই এই লোকদেখানো কুরবানিতে সামিল হবেন এমন নয়। নিজের গুরুত্ব দৃশ্যমান করার চেষ্টায়ও অনেকে এতে সামিল হবেন।

উদাহরণ দিয়ে তারা বলেন, কেউ আছেন মাংস বিলিয়ে ভোটারদের কাছে নিজেকে মেলে ধরার চেষ্টা করবেন। পরবর্তীতে নির্বাচনের মূল প্রার্থীদের কাছে তিনি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠার সম্ভাবনা বাড়তে পারে। ফলে প্রার্থীরাও তাঁকে পক্ষে টানার চেষ্টা করতে পারেন বা তিনি যেন প্রার্থী না হন সেজন্য অন্য প্রার্থীরা তাকে ম্যানেজ করার চেষ্টা করতে পারেন। এছাড়া মূল প্রার্থীদের মধ্যেতো মাংস বিলিয়ে ভোটারদের নৈকট্য লাভের চেষ্টা থাকতেই পারে।

সংশ্লিষ্টদের মতে, এই প্রবণতা ইউনিয়ন এমনকি ওয়ার্ড পর্যন্তও লক্ষ্য করা যায়।

-লিপু

Comments