July 20, 2024, 12:43 am


নিজস্ব প্রতিবেদক

Published:
2024-06-24 18:04:38 BdST

মাগুরায় পরিবার পরিকল্পনা কর্মচারীর বিরুদ্ধে নাবালিকাকে শ্লীলতাহানি ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ


মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর মোঃ হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে নাবালিকা কন্যাকে শ্লীলতাহানি এবং ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীর পিতা। তিনি হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ এবং এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে গত ২১শে জুন ২০২৪ ইং তারিখে রাত আনুমানিক ০৯:৩০ টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নবনির্মিত ভবনের দোতলায় এসে অভিযুক্ত হাবিবুর রহমান ভুক্তভোগী নাবালিকাকে হাত ধরে টানতে থাকে এবং শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। এসময় অভিযুক্ত হাবিবুর রহমান মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় মেয়েটির আর্তচিৎকারে পরিবারের সদস্যরা এগিয়ে এসে উদ্ধার করে ভুক্তভোগীকে।

এই ঘটনার পর ভুক্তভোগীর মা শ্রীপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, অভিযুক্ত হাবিবুর রহমান এর আগেও একাধিক উঠতি বয়সী মেয়েদের অর্থের লোভ দেখিয়ে শ্লীলতাহানি করেছেন।

এদিকে একাধিক সূত্র থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে, অভিযুক্ত হাবিবুর রহমান মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৩০ বছর যাবৎ চাকরিকালীন সময়ে নানা রকম দুর্নীতি, ক্লিনিক্যাল খাতের বিভিন্ন রকম ফী, প্রকল্পে বরাদ্দকৃত অর্থ ভুয়া বিল ভাউচারের মাধ্যমে আত্মসাৎ করে হাতিয়ে নিয়েছে কোটি কোটি টাকা।

এমনকি শ্রীপুর উপজেলা সমাজসেবা অফিস থেকে গরিব অসহায় রোগীদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থও আত্মসাৎ করেছেন হাবিবুর রহমান।

এছাড়াও শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থাকা সরকারি স্যালাইন বাইরে বিক্রি করে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন অভিযুক্ত হাবিব।

অভিযুক্ত হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক শাস্তিমূলক প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

Unauthorized use or reproduction of The Finance Today content for commercial purposes is strictly prohibited.


Popular Article from FT বাংলা