July 18, 2024, 10:00 am


অনলাইন ডেস্ক:

Published:
2024-07-08 17:38:02 BdST

যান চলাচল বন্ধ, দখলে শাহবাগ : কোটাবিরোধীদের


সরকারি চাকরির নিয়োগে কোটা পদ্ধতি বাতিল এবং ২০১৮ সালের পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে টানা দ্বিতীয় দিনের ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে শাহবাগ মোড় অবরোধ করেছেন কোটাবিরোধী আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এতে স্থবির হয়ে পড়েছে শাহবাগসহ আশপাশের সব সড়ক। বন্ধ হয়ে গেছে যান চলাচল।
পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সোমবার (৮ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টায় শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। এর আগে বিকেল সাড়ে ৩টায় শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে জড়ো হন। প্রতিটি হল ও বিভাগ থেকে মিছিল নিয়ে আন্দোলনকারীরা গ্রন্থাগারের সামনে সমবেত হন।
এরপর গ্রন্থাগারের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে হলপাড়া-মুহসীন হল-ভিসি চত্বর-টিএসসি হয়ে শাহবাগে যান শিক্ষার্থীরা। সেখানে গিয়ে তারা শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন।
শিক্ষার্থীদের ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচিতে অচল সায়েন্সল্যাব মোড়
যেভাবে বাতিল হয়েছিল কোটা
শিক্ষার্থীদের অবরোধের মুখে গতকালের মতো আজও শাহবাগসহ আশপাশের সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এতে বিভিন্ন সড়কে তৈরি হয়েছে তীব্র যানজট। ভোগান্তি পোহাতে দেখা গেছে নগরবাসীকে।
এদিকে, মিছিল ও অবরোধের সময় শিক্ষার্থীরা ‘অবরোধ অবরোধ-সারা বাংলা অবরোধ’, ‘দফা এক দাবি এক-কোটা নট কামব্যাক’, ‘বাধা দিয়ে আন্দোলন-বন্ধ করা যাবে না’, ‘কোটা না মেধা-মেধা মেধা’, আপস না সংগ্রাম-সংগ্রাম সংগ্রাম’, ‘আঠারোর পরিপত্র-পুনর্বহাল করতে হবে’, ‘কোটাপ্রথা নিপাত যাক-মেধাবীরা মুক্তি পাক’, ‘সারা বাংলায় খবর দে-কোটাপ্রথার কবর দে’, ‘আমার সোনার বাংলায়-বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘জেগেছে রে জেগেছে-ছাত্র সমাজ জেগেছে’ স্লোগান দেন।
শাহবাগ ছাড়াও একই সময়ে রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্ব পয়েন্টে দ্বিতীয় দিনের মতো শিক্ষার্থীদের ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি চলছে।
এদিকে, বিকেল পৌনে ৫টার দিকে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের সামনে থেকে মিন্টু রোড পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এতে সড়কের দুপাশে কয়েকশো গাড়ি আটকা পড়ে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়েছে।
কোটা বণ্টনে সংস্কার জরুরি, সমাধানের সূত্র সরকারের হাতেই
কী ছিল আলোচিত ২০১৮ সালের কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপনে?
গতকাল রোববার শাহবাগসহ রাজধানীর ব্যস্ততম পয়েন্টে টানা চার ঘণ্টা অবরোধের পর বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের ব্যানারে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন। তাতে জানানো হয়, সোমবারও বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করবেন তারা।
শিক্ষার্থীরা গত শনিবার (৬ জুলাই) শাহবাগে অবস্থান কর্মসূচি শেষে সারাদেশে সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ স্থান, মহাসড়ক অবরোধ করার ঘোষণা দেন। এ কর্মসূচিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ‘বাংলা ব্লকেড’ হিসেবে ঘোষণা করেন। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার বিকেল ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত টানা চার ঘণ্টা ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে প্রথম দিনের ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা।

Unauthorized use or reproduction of The Finance Today content for commercial purposes is strictly prohibited.


Popular Article from FT বাংলা