সামি

Published:
2020-07-01 15:03:05 BdST

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেই


দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী গ্রুপ ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেই (ইন্না লিল্লাহি... রাজিউন)। বুধবার বেলা দেড়টার দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নিজ বাড়িতে মারা যান তিনি।

লতিফুর রহমান বার্ধক্যজনিত কারণে মারা গেছেন বলে জানা গেছে। তার মরদেহ কুমিল্লা থেকে ঢাকায় আনা হচ্ছে।

আজ বাদ এশা গুলশানের আজাদ মসজিদে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

লতিফুর রহমান ১৯৪৫ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তার স্ত্রীর নাম শাহনাজ রহমান।

মৃত্যুর সময়ে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে রেখে গেছেন।

জানা গেছে, তিনি বেশ দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। শেষের দিকে বেশিরভাগ সময়ই তিনি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের বাড়িতে থাকতেন।

৭৪ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী ট্রান্সকম গ্রুপের কর্ণধার। এই গ্রুপ ফাস্টফুড, কোমল পানীয়, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক পণ্য, ওষুধ, সংবাদপত্র, চা শিল্প, বীমা ইত্যাদি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত।

ট্রান্সকম গ্রুপ যার উৎপত্তি হয়েছিল চা চাষের মাধ্যমে, এখন বাংলাদেশের অন্যতম একটি বড় কর্পোরেট  প্রতিষ্ঠান, যার রয়েছে ১৬টি কোম্পানি। ১০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান করেছে এ গ্রুপ।  

এছাড়াও লতিফুর রহমান নেসলে বাংলাদেশ, হোলসিম বাংলাদেশ এবং ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স ও ইনভেস্টমেন্টের চেয়ারম্যান। তিনি লিন্ডে বাংলাদেশ এবং এনজিও ব্র্যাকের গভর্নিং বোর্ডের পরিচালক। এছাড়া তিনি আইসিসি বাংলাদেশের সহ-সভাপতি।

লতিফুর রহমান প্রথম আলো ও ডেইলি স্টার পত্রিকার অন্যতম মালিক ছিলেন।

তিনি ২০১২ সালে মর্যদাপূর্ণ বিজনেস ফর পিস অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন।

তিনি এমন দিনে মারা গেলেন, যেদিন তার নাতি ফারাজ আইয়াজ হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী।

যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারাজ হোসেন ২০১৬ সালের ১ জুলাই ঢাকার হোলি আর্টিজান রেস্তোঁরায় জঙ্গি হামলার ঘটনায় নিহত হন।

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের অকাল প্রয়ানে বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনায় ও তার পরিবারের প্রতি অনলাইন নিউজ পোর্টাল ফিন্যান্স টুডে এবং দি ইনভেস্টর ম্যাগাজিন গভীর শোক প্রকাশ করেছে।

Unauthorized use or reproduction of The Finance Today content for commercial purposes is strictly prohibited.


Popular Article from FT বাংলা